Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারি ২০১৯, ১১ মাঘ ১৪২৫
  • ||

পর্ন তারকা থেকে যেভাবে হলিউডের তারকা

প্রকাশ:  ০৩ জানুয়ারি ২০১৮, ২০:০৭ | আপডেট : ০৩ জানুয়ারি ২০১৮, ২০:২৯
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট icon

ঢালিউড, বলিউড, হলিউড সব তারকাদের নিয়ে তার ভক্তদের আগ্রহের শেষ নেই। হলিউডের অনেক তারকা রয়েছেন যারা তাদের ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন পর্নস্টার হিসেবে। যদিও আজ তারা আক্ষরিক অর্থেই দূর আকাশের তারা। পাঠকদের জন্য রইল এমন কিছু তারকার খবর।

সিলভেস্টার স্ট্যালোন: অস্কারজয়ী স্ট্যালোন, যিনি ‘রকি’ সিরিজে অভিনয় ও পরিচালনা করে জনপ্রিয়তার চূড়ায় পৌঁছেছিলেন, তিনি ক্যারিয়ারের শুরুতে অভিনয় করেছিলেন যৌনতাপূর্ণ চলচ্চিত্র ‘দ্য পার্টি অ্যাট কিটি অ্যান্ড স্টাডস’-এ। ‘রকি’ সিরিজের মাধ্যমে জনপ্রিয় হওয়ার পর প্রযোজকেরা এই ছবির নতুন নাম দেন ‘ইটালিয়ান স্ট্যালোন’।

জ্যাকি চ্যান: মার্শাল আর্ট এক্সপার্ট, চ্যাপস্টিক জিনিয়াস কত নামেই না ডাকা হয় তাকে। পাশাপাশি আড়ালে আবডালে পর্নস্টার বলেও ডাকেন অনেকে। কারণ ‘দ্য কারাটে কিড’ হিসেবে দর্শকনন্দিত হওয়ার আগে ৭০ এর দশকে তিনি রগরগে এডাল্ট কমেডি ‘অল ইন দ্য ফ্যামিলি’তে অভিনয় করেছিলেন।

আর্নল্ড শোয়ার্জনেগার: আপনি যদি একজন বিশ্ববিখ্যাত বডিবিল্ডার হন, আপনার শরীরের প্রতি দর্শকের একটা দুর্দমনীয় আকর্ষণ তো থাকবেই। আর তাই শোয়ার্জনেগার শুধু সাতবারের মিস্টার অলিম্পিয়া বিজয়ীই নন, বেশ কয়েকবার নগ্ন হয়ে নিজের শরীর দেখিয়েছেন ‘ব্লুবয়’ ম্যাগাজিনেও।

ম্যাট লেব্ল্যাংক: সর্বকালের অন্যতম সেরা টিভি সিটকম ‘ফ্রেন্ডস’-এর কথা কে না জানে। সেই সিরিজের মজার চরিত্র জোয়ির কথা মনে আছে? সেই জোয়ি চরিত্রে অভিনয় করা ম্যাট লেব্ল্যাংকের ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল সফটকোর পর্নের মাধ্যমে। ‘রেড শু ডায়রিজ’ নামের একটি শো টাইম সিরিজে অভিনয় করেছিলেন তিনি।

ক্যামেরন ডায়াজ: ১৯ বছর বয়সে ডায়াজ একটি সফটকোর পর্ন ছবিতে অভিনয় করেছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি আয় করা অভিনেত্রীদের একজন ডায়াজ এটি নিয়ে খুবই বিব্রত ছিলেন, এবং ১৯৯৪ সালে ‘দ্য মাস্ক’ ছবির মাধ্যমে খ্যাতি পাওয়ার পর তিনি সেই পর্ন ছবিটির স্বত্ব কিনে নেন যাতে সেটি কেউ আর কখনও দেখতে না পারে।

প্যারিস হিল্টন: ২০০৪ সালে তার সেক্সটেপ ‘ওয়ান নাইট ইন প্যারিস’ মুক্তি পায় এবং গোটা বিশ্বজুড়ে তা নিয়ে তুমুল সাড়া পড়ে যায়। এমনকি ‘পারিবারিক বন্ধু’ ডোনাল্ড ট্রাম্পও তার স্ত্রী মেলানিয়ার সাথে বসে এটি দেখেন এবং তিনি এতটাই মুগ্ধ হন যে কয়েকদিন আগে একটি সাক্ষাৎকারেও এটির উল্লেখ করেন।

কিম কার্দাশিয়ান: গুজব শোনা যায় যে কার্দাশিয়ানের মা ক্রিস জেনার নিজেই মেয়ের সাবেক প্রেমিক জেন রের সাথে সেক্সটেপ ফাঁস করে দেন, এবং তার উদ্দেশ্য ছিল মেয়েকে লাইমলাইটে নিয়ে আসা। তা তিনি সত্যিই করতে পেরেছিলেন। সেই সেক্সটেপের কল্যাণে সবার মুখে মুখে ঘুরতে শুরু করে কার্দাশিয়ানের নাম।

ডেভিড ডুচোভনি: এক্স ফাইলস ও ক্যালিফর্নিকেশন তারকা ডুচোভনি ম্যাট লেব্ল্যাংকের সাথে একই সিরিজে সফটকোর পর্ন করেছিলেন। এরপর তিনি একটি পূর্নদৈর্ঘ্য পর্ন ছবিতেও অভিনয় করেন, এবং শো টাইমে যৌনতা বিষয়ক একটি অনুষ্ঠানেরও সঞ্চালনা করেন।

অ্যাডাম ওয়েস্ট: যাকে বলা হয়ে থাকে ‘প্রকৃত ব্যাটম্যান’, তিনি পর্ন ছবিতেও মুখ দেখিয়েছেন। হ্যাঁ, ওয়েস্ট সত্যি সত্যিই বেশ কিছু পর্ন ছবিতে অভিনয় করেছেন। কিন্তু তাকে কখনোই সরাসরি যৌনকর্মে লিপ্ত হতে দেখা যায়নি অবশ্য!

মেরিলিন মনরো: এই তালিকায় মনরোর নাম দেখে অনেকেই রেগে যেতে পারেন। এ কথায় অবশ্যই কোন ভুল নেই যে মনরো কখনো কোন পর্ন ছবিতে অভিনয় করেননি। কিন্তু একইসাথে এ কথাও সত্য যে গত শতকের ‘সেক্স সিম্বল’ মনরো তার ক্যারিয়ার জুড়ে নগ্ন বা অর্ধনগ্ন হয়ে পোজ দিয়েছেন, এমন ফটোশ্যুটের সংখ্যাও নেহাত কম নয়!

apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত