Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৪ ফাল্গুন ১৪২৫
  • ||

বইমেলা পুরো মাসের নয়, মাত্র ১৬০ ঘণ্টার!

প্রকাশ:  ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০১:৩৪ | আপডেট : ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০২:১৯
রবিউল কমল
প্রিন্ট icon

মোহিত কামাল লেখালেখির মাধ্যমে নিজের আলাদা পরিচয় তৈরি করেছেন অনেক আগেই, বানিয়েছেন নিজের অসংখ্য ভক্ত ও গুণগ্রাহী। প্রতি বছর মেলায় আসে তার নতুন বই। বিদ্যা প্রকাশের স্টলে প্রায় প্রতিদিন উপস্থিত থাকেন তিনি। সেখানেই তার সাথে কথা হয়েছিল মেলা এবং মেলা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে।

পূর্বপশ্চিম: এবারের মেলায় কয়টি বই এসেছে?

মোহিত কামাল: দুইটি বই মেলায় চলে এসেছে। বিদ্যা প্রকাশ থেকে লুইপা'র কালসাপ ও অনিন্দ্য থেকে সত্য ডানা সন্দেহপালক।

পূর্বপশ্চিম: মেলা নিয়ে আপনার মন্তব্য?

মোহিত কামাল: এবারের মেলা অনেক ছিমছাম, বেশ সাজানো গোছানো পরিবেশ। তাছাড়া মেলার অভ্যন্তরে বসার জায়গা বানানো হয়েছে এটা আমার কাছে অনেক ভালো লেগেছে। এজন্য মেলা কর্তৃপক্ষকে অবশ্যই ধন্যবাদ জানাতে হবে।

পূর্বপশ্চিম: মেলায় এসে কেমন লাগছে?

মোহিত কামাল: অনেক ভালো লাগছে। এখানে এসে যখন দেখি তরুণ-তরুণীরা একজন অন্যজনের হাত ধরে হাটছে, তখন আমার মনটা ছুঁয়ে যায়। আরও বেশি ভালো লাগে যখন তারা বই কিনে একজন আরেকজনকে গিফট করে। তাছাড়া বইমেলা হচ্ছে আমার প্রিয় একটি জায়গা তাই এখানে এলে আমার অনেক ভালো লাগে। এই ভালো লাগাটো আসলে ভাষায় প্রকাশ করা অসম্ভব।

পূর্বপশ্চিম: মেলা নিয়ে আপনার পরামর্শ-

মোহিত কামাল: বাংলা একাডেমি সবসময় এই মেলাকে পুরো মাসের মেলা বলছে। কিন্তু এটা সম্পূর্ণ ভুল একটি প্রচার। এখানে প্রতিদিন মেলা শুরু হয় বিকাল ৩টা থেকে আর শেষ হয় রাত ৮.৩০, ছুটিরদিনে শুরু হয় সকাল ১১টা থেকে আর শেষ হয় রাত ৯টায়। হিসাব করলে দেখা যাবে সারা মাসে মেলা হচ্ছে ১৬০ ঘন্টা বা তার চেয়ে একটু বেশি। অথচ বাংলা একাডেমি বলছে পুরো মাসের মেলা। আমি বলতে চাই আমাদের সৃজনশীলতাকে ১৬০ ঘন্টাতে বন্দি না রেখে অন্যান্য মেলার মতো বইমেলাও সকাল থেকে শুরু করা উচিৎ। আর মেলার মান আরও বাড়াতে হবে। সেজন্য আমাদের দেশের বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা লেখকদের অংশগ্রহণের সুযোগ দিতে হবে। তাহলে আমাদের এই মেলার মান আরও বেড়ে যাবে।

মোহিত কামাল
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত