Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারি ২০১৯, ১১ মাঘ ১৪২৫
  • ||

সুপার ওভারে খুলনাকে হারালো চিটাগং

প্রকাশ:  ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ১৭:৫১ | আপডেট : ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ১৮:০৭
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট icon

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ষষ্ঠ আসরে ষষ্ঠ দিনের প্রথম খেলায় খুলনা টাইটান্সের মুখোমুখি হয় চিটাগং ভাইকিংস। বিপিএলের ইতিহাসে এই প্রথম সুপার ওভার ম্যাচে আগে ব্যাটিং করতে নামে চিটাগং। আর খুলনার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ বল তুলে দেন পাকিস্তানের পেসার জুনায়েদ খানের হাতে। খুলনা আগে ব্যাট করে ১ ওভারে ১১ রান করে। সেই সাথে ১২ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় মাহেলা জয়াবরধনের শিষ্যদের সামনে। খুলনা ব্যাট করতে নেমে ১০ রানে থেমে যায়। ফলে মুশফিক বাহিনী ১ রানের শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে জয় তুলে নেয়।

ডেলপোর্ট করেন ৬ রান। ফ্রাইলিংক ৪ রানে আউট হন। মুশফিকের ব্যাট থেকে আসে ১ রান।১২ রানে ব্যাট করতে নেমে খুলনার দুই ব্যাটসম্যান ব্রাথওয়েট ও মালান ৩ বলে ৭ রান ‍তুলে। ফ্রাইলিংকের চতুর্থ বলে মালান আউট হলে , শেষ ২ বলে ৫ রান দরকার হয়। পঞ্চম বলে ২ রান নেয় স্টারলিংক। শেষ বলে ৩ রান নিয়ে দলকে জয় উপ্পহার দিতে পারেনি স্টারলিংক। সেই সাথে টানা চার ম্যাচ হারের তিক্ত স্বাদ পেল খুলনা। অন্যদিকে তৃতীয় ম্যাচে দ্বিতীয় জয় পায় মুশফিকের চিটাগং।

এর আগে, টস হেরে আগে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৫১ রান তুলে খুলনা। জয়ের জন্য ব্যাটিংয়ে নেমে ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৫১ রান করে মুশফিক বাহিনী। ফলে বিপিএলে এই প্রথম ম্যাচ ড্র হয় আর খেলা গড়ায় সুপার ওভারে।

জয়ের জন্য শেষ ওভারে চিটাগংয়ের দরকার ছিল ১৯ রান। আরিফুল হকের ওভারে প্রথম বলে রান নিতে পারেনি নাঈম হাসান। দ্বিতীয় বলে ছক্কা মারেন তিনি। তৃতীয় বলে নাঈমকে আউট করে সাজঘরে পাঠিয়ে দেন আরিফুল। ফ্রাইলিংক চতুর্থ ও পঞ্চম বলে ছক্কা মারেন। ষষ্ঠ বলে ফ্রাইলিংক আউট হলে ম্যাচ চলে যায় সুপার ওভারে।

ডেভিড মালান ও মাহমুদউল্লাহর ব্যাটে ভড় করে লড়াকু পুঁজি তুলে রিয়াদবাহিনী। মালানের ব্যাট থেকে আসে সর্বোচ্চ ৪২ বলে ৪৫ রান। মাহমুদউল্লাহর ব্যাট থেকে আসে ৩৩ রান। পল স্টারলিংক ১৮ ও জুনায়েদ সিদ্দিকী ২০ রান করেন। চিটাগংয়ের হয়ে সানজামুল সর্বোচ্চ ২ উইকেট নিজের ঝুড়িতে তুলে নেন।

চিটাগংয়ের হয়ে দায়িত্বশীল ব্যাটিং করেছেন ইয়াসির আলি ও মুশফিকুর রহিম। ইয়াসির ৩৪ বলে ৪১ রান করেন। মুশফিক ২৬ বলে ৩৪। শেষের দিকে ১৩ বলে ২৩ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন ফ্রাইলিংক। ব্রাথওয়েট ও শরিফুল দুইটি করে উইকেট পান।

দিনের আরেক ম্যাচে একই স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা সাড়ে ৬.৩০ ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে মাঠে নামবে সিলেট সিক্সার্স।

খুলনা টাইটানস একাদশ: পল স্টারলিং, জুনায়েদ সিদ্দিকী, ডেভিড মালান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), নাজমুল হোসেন শান্ত, মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন (উইকেটরক্ষক), আরিফুল হক, কার্লোস ব্র্যাথওয়েট, তাইজুল ইসলাম, শরিফুল ইসলাম ও জুনায়েদ খান।

চিটাগং ভাইকিংস একাদশ: মোহাম্মদ শাহাজাদ (উইকেটরক্ষক), ক্যামেরন ডেলপোর্ট, মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক), মোসাদ্দেক হোসেন, ইয়াসির আলী, সিকান্দার রাজা, রবি ফ্রালিনক, খালেদ আহমেদ, নাঈম হাসান, সানজামুল ইসলাম ও আবু জয়েদ রাহি।

/এস কে

apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত