Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • বুধবার, ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ১০ মাঘ ১৪২৫
  • ||

বাজারে আসতে শুরু করেছে দিনাজপুরের লিচু

প্রকাশ:  ২৫ মে ২০১৮, ১৬:৪৫
দিনাজপুর প্রতিনিধি
প্রিন্ট icon

অনন্য স্বাদের রসালো টসটসে লাল ও লোভনীয় সবার মন জয় করা দিনাজপুরী লিচু এখন বাজারে। আর দিনাজপুরী লিচু মানেই অন্যরকম মিষ্টি ও স্বাদ। দেশের সেরা দিনাজপুরে বিভিন্ন জাতের লিচুর মধ্যে বেদানা, বোম্বাই, মাদ্রাজি, চায়না-থ্রি আর দেশী লিচু এখন গাছে গাছে। আর বাগানগুলোতে মৌ মৌ গন্ধ। দিনাজপুরী লিচু যার নাম শুনলে অনেকে ঠিক থাকতে পারে না। গোটা দেশেই যার চাহিদা-বাজার রয়েছে। লাল টসটসে মাদ্রাজি লিচু দিনাজপুরের নিউমার্কেটে ফলের আড়তে মাদ্রাজী লিচু উঠেছে।

যদিও লিচু প্রকৃতভাবে সব পাকেনি তারপরেও বাজারে কদরের কমতি নেই। সময়ের আগে বাজারে আসা লিচুর স্বাদ তেমন পাওয়া না গেলেও চাহিদা কম নাই। বাজারে নামতে শুরু করেছে লিচু। তবে রমজানে লিচুর ভাল দাম পাওয়া যাবে কিনা এ নিয়ে শংকায় রয়েছে লিচু চাষীরা।

দিনাজপুর শহরের নিউ মার্কেটের ফলের আরতদার মোঃ নজরুল ইসলামের ‘নিউ একতা আরত’-এ শোভা পাচ্ছে মাদ্রাজী লিচু। প্রথম ২০ হাজারের মত লিচু বাজারে আসে। প্রতি হাজার লিচু’র বাজার মূল্য ১৪৫০ টাকা ছিল বলে জানান তিনি। লিচু বাজারে কেনাবেচা পুরোদমে শুরু হবে আগামী সপ্তাহে।

বিরলের তিমিরসহ চাষীরা জানায়, বাজারে মাদ্রাজী প্রতি শত লিচুর মুল্য ১৪৫ থেকে ২০০টাকা। যদিও পর্যাপ্তভাবে বেদনা ও চাইনীজ থ্রিসহ অন্যান্য জাতের লিচু নামেনি। আগামী সপ্তাহে পুরোদমে লিচু বাজারে আসবে।

লিচু চাষী আসাদুজ্জামান লিটন জানান, মুকুল ও গুটির সময় বৃষ্টি-ঝড় হওয়ায় এ ফলন কিছু নষ্ট হয়েছে। বিরলের কৃষি কর্মকর্তা আশরাফুল আলম জানান, এখানে বোম্বে লিচুর চাষ বেশী হয়েছে। তবে এ জাতের লিচুটি একবছর ভাল হলে পরের বছর একটু ফলন কমে যায়। এটা স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। এখন বাজারে নেমেছে মাদ্রাজী জাতের লিচু। এবার ভাল হয়েছে।

লিচু পল্লী বলে খ্যাত মাসিমপুর এলাকার মোসাদ্দেক ও আলী আকবর জানায়, বাগানের গাছে থোকায় থোকায় লিচুতে রঙে বেরঙিন হয়ে গাছে গাছে ঝুলছে। এবার ঝড়-বৃষ্টিতে ফলন কিছু নষ্ট হয়েছে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ জানায়, দিনাজপুর জেলায় এবার ২৪ হাজার ৬০০ মেট্রিক টন লিচু উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে কৃষি বিভাগ। দিন দিন লিচুর ফলন এবং দাম ভাল পাওয়ায় এ চাষের জমি বাড়ছে। বাগান ছাড়াও কিছু সংখ্যক বাড়ীর ভিটা জমিতে ২/৪টি করে লিচু গাছ রয়েছে।

উলে­খ্য, এক দশক যাবত অবিশ্বাস্য গতিতে বৃহত্তর দিনাজপুরের বিভিন্ন উপজেলায় লিচুর চাষাবাদ বাড়ছে। মৌসুমে রাজধানী থেকে আগত লিচু ব্যবসায়ীরা বিভিন্ন বাগান থেকে সরাসরি প্রতিদিন বাগান থেকে ২৫/৩০ লাখ লিচু কিনে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পাঠায়। যদিও এর বেচাকেনা এখনও পুরোদমে শুরু হয়নি।

apps