Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৯, ৮ বৈশাখ ১৪২৬
  • ||

হবিগঞ্জে ৫ সহস্রাধিক সরকারি নতুন বই ভাঙ্গারি দোকানে

প্রকাশ:  ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১:৪৩
হবিগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রিন্ট icon

হবিগঞ্জে ভাঙ্গারি দোকান থেকে উদ্ধার হওয়া ৫ সহস্রাধিক নতুন বই বিক্রি করা হয়েছিল ৮ টাকা কেজি দরে। জেলার বানিয়াচং উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের নৈশ প্রহরী ঠোঁট কাটা নুরুজ্জামান বইগুলি বিক্রি করে।

রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) রাত সোয়া ৯টায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল ইসলাম এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে এই তথ্য নিশ্চিত করেন। এর আগে রোববার বিকেলে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুল ইসলামের আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে গ্রেফতারকৃত আসামিরা এ তথ্য জানায়।

এএসপি রবিউল ইসলাম জানান, বানিয়াচং উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের নৈশ প্রহরী ঠোঁট কাটা নুরুজ্জামানের নিকট থেকে ৮ টাকা কেজি দরে ক্রয় করে লাখাই উপজেলার পশ্চিম বুল্লা গ্রামের সফর উদ্দিন ওরফে মনা মিয়া। পরবর্তীতে সে ১১ টাকা কেজি দরে বিক্রি করে বানিয়াচং উপজেলার সাঘরদিঘীর পাড়ের মৃত দুদু মিয়ার ছেলে দুলাল মিয়ার নিকট। এই বই কালোবাজারীর ঘটনায় সর্বমোট গ্রেফতার হয়েছে ৪ আসামি। এছাড়া নৈশ প্রহরী নুরুজ্জামান পলাতক রয়েছে বলেও জানান তিনি।

১৪ জানুয়ারি সন্ধ্যায় কোর্ট স্টেশন ফাঁড়ির ইনচার্জ গোলাম কিবরিয়া চৌধুরীর এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ শহরের পৌর বাস টার্মিনাল এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন শ্রেণির ৫ হাজার ৫৯০টি সরকারি নতুন বই জব্দ করে। এ সময় লাখাই উপজেলার পশ্চিম বুল্লা গ্রামের আমিরুল মিয়ার ছেলে রাসেল মিয়া (৩০) ও একই গ্রামের নূর মিয়ার ছেলে হাশিম মিয়া (৩৫)কে গ্রেফতার করা হয়।

পরদিন গ্রেফতারকৃত দুইজনসহ ৪ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন কোর্ট স্টেশন পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী। রাসেল ও হাশিমের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ২৭ জানুয়ারি দুলাল এবং ২৮ জানুয়ারি মনা মিয়াকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে তাদেরকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তারা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে।

/পিবিডি/পি.এস

হবিগঞ্জ,সরকার,নতুন বই
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত