Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯, ৬ বৈশাখ ১৪২৬
  • ||

পরীক্ষার খাতা বাড়িতে রাখার অভিযোগ কেন্দ্র সচিবের বিরুদ্ধে!

প্রকাশ:  ২৫ মার্চ ২০১৯, ১৯:২২
পাবনা প্রতিনিধি
প্রিন্ট icon

কাউকে না জানিয়ে পরীক্ষার খাতাসহ অন্যান্য উপকরণসমূহ কেন্দ্রে না রেখে নিজের বাড়িতে নিয়ে রাখলেন কেন্দ্র সচিব। বিষয়টি জানতে পেরে সোমবার (২৫ মার্চ) ওই কেন্দ্র সচিবের বাড়ি থেকে পরীক্ষার খাতা সহ অন্যান্য সরঞ্জাম উদ্ধার করলেন ইউএনও।

এমনই এক গুরুতর অভিযোগ উঠেছে পাবনার চাটমোহর এনায়েতুল্লাহ ইসলামিয়া (ফাযিল) মাদ্রাসার কেন্দ্র সচিব মাওলানা আব্দুর রউফের বিরুদ্ধে। তিনি উপজেলার হান্ডিয়াল ইউনিয়নের পাকপাড়া সিনিয়র মাদ্রাসার অধ্যক্ষ। পরীক্ষার খাতা নিজ বাড়িতে নেয়ার অভিযোগে কেন্দ্র সচিবের দায়িত্ব থেকে তাকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

অভিযোগে জানা গেছে, চাটমোহর এনায়েতুল্লাহ ইসলামিয়া (ফাযিল) মাদ্রাসায় অধ্যক্ষ পদ শুন্য থাকায় বিধি মোতাবেক একই উপজেলার হান্ডিয়াল ইউনিয়নের পাকপাড়া সিনিয়র মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মওলানা মো. আবদুর রউফকে ওই মাদ্রাসায় অনুষ্ঠিতব্য আসন্ন আলিম পরীক্ষার কেন্দ্র সচিব নিয়োগ করা হয়। আগামী ১ এপ্রিল থেকে চাটমোহর এনায়েতুল্লাহ সিনিয়র মাদ্রাসায় তার কেন্দ্র সচিবের দায়িত্ব পালন করার কথা ছিল। সেই মোতাবেক গত ২১ মার্চ কেন্দ্রের তদারকি কর্মকর্তা উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের সহকারী ইন্সট্রাক্টর কল্যাণ কুমার সরকার ও রামচন্দ্রপুর সিনিয়র মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মওলানা আবদুর রাজ্জাক পরীক্ষার খাতাসহ অন্যান্য উপকরণ জেলা থেকে নিয়ে এসে পরীক্ষা কেন্দ্রে রাখেন। কিন্তু এনায়েতুল্লাহ মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মওলানা মো. আবু ইসাহকের সাথে মত পার্থক্যে দেখা দেওয়ায় ২৩ মার্চ কেন্দ্র সচিব আবদুর রউফ পরীক্ষার খাতাসহ উপকরণ সমূহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে না জানিয়ে নিজের ভাড়া বাড়িতে নিয়ে যান।

বিষয়টি চাটমোহরের সংবাদকর্মীরা জানার পর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরকার অসীম কুমারকে জানালে সোমবার (২৫ মার্চ) কেন্দ্রের তদারকি কর্মকর্তা কল্যাণ কুমার সরকারের মাধ্যমে কেন্দ্র সচিব অধ্যক্ষ মওলানা মো. আবদুর রউফের ভাড়া বাড়ি থেকে খাতাসহ উপকরণসমূহ উদ্ধার করে নিয়ে আসেন।

সহকারি ইন্সট্রাক্টর কল্যাণ কুমার সরকার জানান, কেন্দ্র সচিব কাউকে না জানিয়ে পরীক্ষার খাতা তার নিজের বাড়িতে নিয়ে যেতে পারেন না। আর এ বিষয়ে কেউ কিছু আমাকেও জানায়নি। জানার পর সেগুলো উদ্ধার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার অসীম কুমার বলেন, ‘বিষয়টি জানার পরপরই আমি তদারকি কর্মকর্তাকে দিয়ে খাতাসহ অন্যান্য উপকরণ উদ্ধার করে নিয়ে এসে পরীক্ষা কেন্দ্রে রেখেছি। একই সাথে কেন্দ্র সচিবের দায়িত্ব থেকে অধ্যক্ষ মওলানা আবদুর রউফকে অব্যাহতি দিয়ে তার বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়েছে।’ এ ব্যাপারে জানতে চেয়ে কেন্দ্র সচিব আবদুর রউফের মোবাইলে ফোন দিলে তিনি সংবাদকর্মী পরিচয় পেয়ে ‘ব্যস্ত আছি, পরে কথা বলবো’ বলে লাইনটি কেটে দেন।

পিবিডি/আর-এইচ

পাবনা
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত