• বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
  • ||

জানুয়ারিতে নির্বাচন কঠিন হবে: ইসি সচিব

প্রকাশ:  ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ২১:৪২ | আপডেট : ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ২১:৪৯
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট
ফাইল ছবি

নির্বাচন পেছানোর বিষয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দাবির বিষয়টি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে মন্তব্য করে নির্বাচন কমিশন সচিব হেলাল উদ্দিন আহমদ বলেছেন, জানুয়ারিতে নির্বাচন আয়োজন করা কমিশনের জন্য কঠিন হবে।

বুধবার (১৪ নভেম্বর) রাতে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

ইসি সচিব বলেন, জানুয়ারিতে অনেক বিষয় আছে। তারপরও নির্বাচন কমিশন বসে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করবে। এ বিষয়ে পরে জানানো হবে।

এর আগে, বিকেলে ঐক্যফ্রন্ট ও আওয়ামী লীগের প্রতিনিধিদলের সাথে পৃথক বৈঠক করে ইসি। সেখানে ভোটের তারিখ ৩ সপ্তাহ পিছিয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পুনঃতফসিলের দাবি জানায় ঐক্যফ্রন্ট। আর নির্বাচনের তারিখ না পেছানোর দাবি জানায় আওয়ামী লীগ।

ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বৈঠক শেষে বলেন, ভোটের তারিখ ৩ সপ্তাহ পেছানোসহ ঐক্যফ্রন্টের দাবিগুলো নির্বাচন কমিশন আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবেন বলে আশ্বাস দিয়েছে।

আওয়ামী লীগের মুখপাত্র এইচটি ইমাম বলেন, জানুয়ারিতে নতুন করে ভোটার তালিকা হালনাগাদ করা হবে। তখন কয়েক লাখ নতুন ভোটার হবে। কিন্তু সর্বশেষ ভোটার তালিকা অনুযায়ী, তারা ভোট দিতে পারবেন না। আর নতুন ভোটাররা মামলা করে দিলে নির্বাচন ভণ্ডুল হতে পারে। এই দায়িত্ব কে নেবে? এরপর নতুন বছরে ছাত্রদের নতুন বই দেওয়ার দায়িত্ব রয়েছে। সেটিও বিলম্বিত হতে পারে। এছাড়া জানুয়ারিতে বিশ্ব ইজতেমা রয়েছে। একটি বিশাল আয়োজন। এখানে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করা, থাকার ব্যবস্থা করার বিষয় আছে। এ সময় নির্বাচন করা সম্ভব নয়।

৩০ তারিখ নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের আসতে সমস্যা হবে, বিএনপির এমন দাবি হাস্যকর মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা বলেন, আমার হাসি পাচ্ছে-কোনো দেশ কি বিদেশিদের জন্য নির্বাচন পেছায়? আমরা একটি স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র। নির্বাচনের সিদ্ধান্ত আমাদের নিজেদের। সেখানে কে পর্যবেক্ষণ করতে আসলো আর কে আসলো না তা বিষয় নয়।

উল্লেখ্য, পুনঃনির্ধারিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ২৮ নভেম্বর, মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের দিন ২ ডিসেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ৯ ডিসেম্বর এবং ভোটের দিন ৩০ ডিসেম্বর।

/সাব্বির

নির্বাচন কমিশন,এইচটি ইমাম,মির্জা ফখরুল
apps