• মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১
  • ||

ছাত্রলীগ ইসলামের প্রকৃত মর্মার্থে বিশ্বাস করে : শেখ ইনান

প্রকাশ:  ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৯:১৮
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান বলেছেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ইসলামের প্রকৃত মর্মার্থে বিশ্বাস করে। ছাত্রলীগ প্রতিটি ধর্মের সত্য ও চিরন্তনতায় বিশ্বাস করে।

সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৪টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মধুর ক্যান্টিন প্রাঙ্গণে বিশ্বের ৮০টি দেশকে হারিয়ে ইরানে কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম হওয়া বাংলাদেশের বিশ্বজয়ী হাফেজ বশির আহমাদকে ফুলের শুভেচ্ছা ও সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

ইনান বলেন, ইরানে কোরআন প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের কৃতি সন্তান বশির আহমাদকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। বশির আহমাদের জন্য অনেক বেশি শুভকামনা। কারণ, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ইসলামের প্রকৃত মর্মার্থে বিশ্বাস করে। ছাত্রলীগ প্রতিটি ধর্মের যে সত্য ও চিরন্তনতা সেই শব্দটিতে বিশ্বাস করে। যে কেউ যেখানেই পড়াশোনা করুক বা যেভাবেই জ্ঞান অর্জন করুক না কেন, যদি সে বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে বশিরের মতো আরও উচ্চ আসনে আসীন করতে পারেন, তাহলে আমরা তাকে শুভেচ্ছা জানাই, সাধুবাদ জানাই। আমরা চাই বশির আহমাদ শুধু নয় এ রকম আরও অনেক বশির বিশ্ব দরবারে ইসলামিক, সাংস্কৃতিক, অর্থনৈতিক, চিকিৎসা এবং ইঞ্জিনিয়ারিংসহ সকল ক্ষেত্রেই বাংলাদেশের নাম উজ্জ্বল করবে, বাংলাদেশের জন্য আরও গৌরবান্বিত মুকুট ছিনিয়ে আনবে।

তিনি সকলকে আহ্বান জানিয়ে বলেন, বশির আহমাদের মতো যে ভাইয়েরা মানুষের নিকট ইসলামের প্রকৃত তাৎপর্য তুলে ধরতে চান, তাদের মাধ্যমে আমরা আহ্বান জানাতে চাই যে, আসুন আমরা ইসলামের সত্যটাকে জানি, ইসলামের যে প্রকৃত বাণী সকলকে নিয়ে ভালো থাকা, সকল ধর্মের মানুষকে সম্মান করে মিলেমিশে থাকা সেই বাণীটিকে আমরা গ্রহণ করে, হৃদয়ে আত্মস্থ করে একটি সুখী, সুন্দর, সুজলা-সুফলা, শস্য-শ্যামলা, উন্নত, আধুনিক, স্বনির্ভর, সমৃদ্ধ ও স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তুলি, যেই বাংলাদেশের মাধ্যমে আমরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের বাংলাদেশ বাস্তবায়ন করতে পারব।

কওমি মাদ্রাসার স্বীকৃতি প্রদানের প্রসঙ্গে টেনে ইনান বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা কওমি মাদ্রাসাকে যে স্বীকৃতি দিয়েছেন, সনদ দিয়েছেন তার জন্য মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা সবসময় আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করেন যে, পরম করুণাময় আল্লাহ তাআলা বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে যেন ভালো রাখেন। তিনি যে স্বীকৃতি দিয়েছেন এর মধ্য দিয়েই প্রমাণিত হয়, বাংলাদেশে কারা আসলে ইসলামের খেদমত করে কিংবা মুসলিমদের পাশে থাকে, আর কারা শুধু ধর্মের নাম ব্যবহার করে, ধর্মকে পুঁজি করে, ভুয়া বুলি আউড়িয়ে মানুষের সিমপ্যাথিকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করে।

এ সময় ছাত্রলীগ সভাপতি সাদ্দাম হোসেনও বক্তব্য দেন। তিনি বলেন, আমরা ছাত্রসমাজকে সবসময় একটি ইনক্লুসিভ ছাত্র রাজনীতির দিকে নিয়ে আসতে চেয়েছি। আমাদের মেইনস্ট্রিম পলিটিক্যাল এক্টিভিজমের সাথে মাদ্রাসা শিক্ষাব্যবস্থা এবং মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের মধ্যে যে সাংস্কৃতিক ব্যবধানটা ছিল, সেই পার্থক্যটি ঘুচিয়ে দেওয়ার জন্যই আমরা হাফেজ বশির আহমাদকে সংবর্ধনা প্রদানের এই উদ্যোগটি গ্রহণ করেছি। শুধু তাই নয়, আমরা বাংলাদেশের ছাত্র রাজনীতিতে প্রথম মাদ্রাসাবিষয়ক সম্পাদক পদটি সংযোজন করেছি।

তিনি বলেন, আমরা মনে করি, মাদ্রাসার যে মেধাবী ও লড়াকু শিক্ষার্থীরা লেখাপড়া করে এবং যারা বাংলাদেশকে নানাভাবে কন্ট্রিবিউট করে, যারা আমাদের নীতি নৈতিকতা প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে আধ্যাত্মিকভাবে আমাদের বাংলাদেশের আত্মাকে শক্তিশালী করার জন্য কাজ করে সেই জায়গায় এবং আমাদের সরকার, বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানগুলোর মাধ্যমে মাদ্রাসা শিক্ষা ব্যবস্থা যেন শক্তিশালী করতে পারি, সেই লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি।

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতার আয়োজন করে ইরান। যেখানে প্রথম হন বাংলাদেশের হাফেজ বশির আহমাদ।

বশির আহমাদ ঢাকার মারকাজুত তাহফিজ ইন্টারন্যাশনাল মাদ্রাসার ছাত্র। তার বাড়ি হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার বেগুনাই গ্রামে। তারা বাবা সহকারী অধ্যাপক মাওলানা মো. আবদুর রশিদ।

ছাত্রলীগ,হাফেজ বশির আহমদ,কোরআন প্রতিযোগিতা,ইরান
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close