• মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১
  • ||

হাতিরঝিল থেকে অপহৃত দুই ব্যক্তি ঢাবির হল থেকে উদ্ধার

প্রকাশ:  ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৯:৪১
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক

ঢাকার হাতিরঝিল এলাকা থেকে তিন দিন আগে অপহৃত হওয়া দুই ব্যক্তিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজী মুহম্মদ মুহসীন হল থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল টিমের সহায়তায় ওই হলের ৫৪৪ নম্বর কক্ষ থেকে দুই ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করা হয়।

ভুক্তভোগীরা হলেন মোহাম্মদ আব্দুল জলিল ও হেফাজ উদ্দিন। তারা উভয়ে পেশায় ব্যবসায়ী।

অপহরণকারীরা হলেন, ছাত্রলীগের ঢাবি শাখার সাবেক উপ-দপ্তর সম্পাদক ও ফিন্যান্স বিভাগের চতুর্থবর্ষের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ আবুল হাসান সাইদি, ছাত্রলীগের মুহসীন হল শাখার প্রচার উপ-সম্পাদক ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের চতুর্থবর্ষের শিক্ষার্থী মোনতাছির হোসাইন এবং একই হলের ত্রাণ ও দুর্যোগ উপ-সম্পাদক আল শাহরিয়ার মাহমুদ তানসেন। এ ছাড়া মো. শাহাবুদ্দীন নামে আরেকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি ছাত্রলীগ নেতা মোনতাছিরের আত্মীয় বলে জানা গেছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মাকসুদুর রহমান বলেন, “অপহরণের সঙ্গে ঢাবির তিন ছাত্রলীগ নেতা জড়িত বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। রাষ্ট্রীয় আইন ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

অভিযুক্তদের ভাষ্য, তিন দিন ধরে ঢাবির হলে তাদের নির্যাতন করা হয়েছে।

শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আলামিন জানান, কক্ষ থেকে একটি লোহার রড উদ্ধার করেছে পুলিশ। এছাড়া ভুক্তভোগীদের শরীরের বিভিন্ন স্থানে নির্যাতনের চিহ্ন রয়েছে।

গ্রেপ্তার মো. শাহাবুদ্দীন জানান, জলিলের কাছে ৩৫ লাখ টাকা পাওনা ছিল শাহাবুদ্দিনের। তিনি টাকা ফেরত চাইলে জলিল নানা তালবাহানা করতে থাকে। এজন্য বুধবার শাহাবুদ্দিন ঢাবির তিন-চারজন শিক্ষার্থীসহ ১০-১২ জনকে নিয়ে হাতিরঝিলের হাজীপাড়া এলাকার বাসা থেকে জলিল ও তার সঙ্গে থাকা হেফজকে অপহরণ করে। জলিলকে প্রথমে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজয় একাত্তর হলে ও পরে হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলের ৫৪৪ নম্বর কক্ষে আটকে রাখা হয়।

হাতিঝিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ মো. আওলাদ হোসেন বলেন, “এ ঘটনায় ভুক্তভোগী জলিলের বাবা অভিযোগ করলে তাদের উদ্ধার করা হয়। অভিযুক্তদের আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।”

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়,ছাত্রলীগ,অপহরণ
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close