Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯, ৫ চৈত্র ১৪২৫
  • ||

যেসব কাজে নারীদের স্তন ক্যানসারের সম্ভাবনা কমে

প্রকাশ:  ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৩:০৯
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
প্রিন্ট icon

পশ্চিমা দুনিয়ার সঙ্গে পাল্লা দিতে গিয়ে ভারতে শহুরে মেয়েদের মধ্যে ব্রেস্ট ক্যানসারের প্রবণতা বাড়ছে হুহু করে। কিন্তু এখনও এ ব্যাপারে যথেষ্ট সচেতনতা তৈরি হয়নি। লজ্জা ও কুন্ঠায় অসুখ লুকিয়ে রাখলে আখেরে ক্ষতি কিন্তু রোগীরই।

পরিসংখ্যান বলছে, ভারতের প্রতি ১৬ জন মহিলার ১ জন স্তন ক্যানসারে আক্রান্ত। যুক্তরাষ্ট্রে এই হার অনেকটাই বেশি। প্রতি ৯ জন মহিলার ১ জন স্তনের কর্কট রোগে আক্রান্ত, আর ব্রিটেনে ১০ জনের ১ জন। তাই এককথায় বলা যায় সারা বিশ্বেই ব্রেস্ট ক্যানসারের প্রবণতা বেড়েই চলেছে।

কিছু রিস্ক ফ্যাকটর রয়েছে, যেমন জেনেটিক কারণ। এটি পরিবর্তন করা না গেলেও আপনার ডায়েট ও লাইফস্টাইল পরিবর্তনের মাধ্যমে এই মারণরোগ ঠেকানো যায় বলেই দাবি চিকিৎসকদের।

ক্যান্সার প্রতিরোধী খাবার খান

অনেক বেশি আঁশযুক্ত খাবার ক্যান্সার সৃষ্টিকারী ইস্ট্রোজেনের মাত্রা কমাতে পারে। এর ফলে ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা ৫০% পর্যন্ত কমে। মটরশুঁটি, তাজা ফল, ব্রোকলি, ফুলকপি, বাঁধাকপি ও ক্যারোটিন সমৃদ্ধ সবজি খান। পেঁয়াজ, রসুন, পেঁয়াজ পাতা ইত্যাদি সবজিগুলো ক্যান্সার সৃষ্টিকারী ফ্রি র‍্যাডিকেলকে নিরপেক্ষ করে এবং ক্যান্সার কোষের বিভক্ত হওয়া প্রতিরোধ করে। এইধরনের সবজি কাঁচা খেলেই সবচেয়ে ভালো ফল পাওয়া যায়।

শারীরিকভাবে সক্রিয় থাকুন

যেসব নারীরা দৈনিক ৩০-৪৫ মিনিট ব্যায়াম করেন তাদের স্তন ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি যারা ব্যায়াম করেন না তাদের চেয়ে ২০-৪০% কমে যায়। তাই প্রতিদিন অন্তত ৩০ মিনিট সাধারণ ব্যায়াম করুন।

ওজন ঠিক রাখুন

গবেষণায় দেখা গেছে যে অধিক ওজন ব্রেস্ট ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা বৃদ্ধি করে। তাই সবার উচিত উচ্চতার সঙ্গে দেহের মানানসই স্বাভাবিক ওজন বজায় রাখা।

নিউট্রিশনাল সাপ্লিমেন্ট

অত্যাবশ্যকীয় ভিটামিন ও মিনারেল সমৃদ্ধ সাপ্লিমেন্ট গ্রহণ করলে ব্রেস্ট ক্যান্সার ও অন্যান্য রোগ প্রতিরোধ করা যায়। পর্যাপ্ত মাত্রার ভিটামিন এ, ডি ও ই ব্রেস্ট ক্যান্সার প্রতিরোধে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

গ্রিনটি পান করুন

গ্রিনটিতে ইজিসিজি নামক উপাদান থাকে যা ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধিকে বন্ধ করতে সাহায্য করে। তাই প্রতিদিন গ্রিনটি পান করুন।

ভালো ফ্যাট গ্রহণ করুন

বিভিন্ন ধরনের চর্বি ব্রেস্ট ক্যান্সারের উপর প্রভাব বিস্তার করে। তাই খারাপ ফ্যাট বর্জন করে ভালো ফ্যাট গ্রহণ করা উচিত। ওমেগা ৩ ফ্যাটি এসিড সমৃদ্ধ খাবার যেমন- মাছের তেল খান এবং ওমেগা ৬ ফ্যাটি এসিড সমৃদ্ধ খাবার যেমন- ভুট্টা, সূর্যমুখীর তেল ইত্যাদি কম গ্রহণ করুন।

ধূমপান বর্জন করুন

যে সব নারীরা ধূমপান করেন বা ক্রমাগত পরোক্ষভাবে ধোঁয়ায় আক্রান্ত হন তাঁদের মধ্যে ব্রেস্ট ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা ৪০% এরও বেশি। যাদের অ্যালকোহল সেবনের অভ্যাস আছে তাদের ব্রেস্ট ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি অনেক বেড়ে যায়। যদি এই অভ্যাসগুলো আপনার থেকে থাকে তাহলে পরিত্যাগ করার চেষ্টা করুন।সূত্র: এই সময়

/পিবিডি/পি.এস

স্তন ক্যানসার
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত