Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৭ ফাল্গুন ১৪২৫
  • ||

ভীড় ভেড়েছে, বিক্রি বেড়েছে

প্রকাশ:  ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২৩:১৯ | আপডেট : ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২৩:২৯
রবিউল কমল
প্রিন্ট icon

শুক্রবার ছিল একুশে বই মেলার ৮ম দিন। এদিনের প্রথম ভাগ ছিল শিশু প্রহর। তাই সকালে মেলা প্রাঙ্গন শিশুদের পদচারণায় মুখর ছিল। বিক্রিও ভালো ছিল অন্যদিনের তুলনায়। এদিন সকাল থেকেই জমজমাট ছিল বইমেলা।

বাবা-মায়ের হাত ধরে গুটি গুটি পায়ে মেলা প্রাঙ্গণে আসে শিশুরা। রঙ বেরঙের বই দেখে খুশি শিশুরা। অনেক বইয়ের মাঝ থেকে কচি হাতগুলো বেছে নিচ্ছে নিজের পছন্দের বইটি। কেউ আবার ব্যস্ত বই পড়ায়। ভূতের বই, রুপকথা, বিজ্ঞান, ছবি আঁকার বই কিংবা ছড়া-পছন্দের বই হাতে পেয়ে খুশি সবাই।

অভিভাবকরা বলছেন, নতুন প্রজন্মকে পড়ার প্রতি আগ্রহ বাড়াতে এবং নিজস্ব সংস্কৃতির সাথে পরিচয় করিয়ে দিতেই মেলায় আসা। তবে বইয়ের দাম বেশি ধরা হচ্ছে বলে অভিযোগ অনেকের। মেলার শুরুতেই বেচাবিক্রি ভালো হওয়ায় খুশি বিক্রেতারা। এদিকে শিশু প্রহরে মেলা প্রাঙ্গনে আসেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলার। কচিকাচাদের সাথে সময় কাটান তিনি। সিসিমপুরের হালুম, ইকরি, শিখু ও টুকটুকিকে নিয়ে আনন্দে মাতে শিশুরা।

তবে ছুটির দিনের মেলা শুধুই ছোটদের জন্য নয়, তা বোঝা যায় বিকাল থেকে। বিকাল থেকে বিভিন্ন বয়সী মানুষের আগমন বাড়তে থাকে। এদিন মেলায় পাঠক সমাগম ছিল অনেক বেশি। বই কিনেছেন প্রায় সকলেই। বিক্রিও বেড়েছে বলে জানান প্রকাশকরা। ছুটির দিনের জমজমাট মেলা নিয়ে খুশি তারা।

একুশে বই মেলা,শিশু প্রহর
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত