Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, ৭ বৈশাখ ১৪২৬
  • ||

হার্দিক পান্ডিয়া ঝড়ে ফের হার কোহলিদের

প্রকাশ:  ১৬ এপ্রিল ২০১৯, ০২:১৮
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট icon

শেষ দু’ওভারে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস দলের জন্য দরকার ছিল ২২ রান৷ ক্রিজে হার্দিক পান্ডিয়া ও কাইরন পোলার্ড৷ বাঁ-হাতি স্পিনার পবন নেগির হাতে বল তুলে দিয়েছিলেন রয়্যাল অধিনায়ক বিরাট কোহলি৷ প্রথম বল বিট করে চমক দিয়েছিলেন নেগি৷ কিন্তু পরের পাঁচ বলে ৬,৪,৪,৬ মেরে এক ওভার বাকি থাকতেই ম্যাচ পকেটে পুরে নেন হার্দিক৷

আগের ম্যাচেই চলতি আইপিএলে প্রথম জয় পেয়েছিল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। তবে সেই ছন্দটা ধরে রাখতে পারলো না তারা।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) হার্দিক পান্ডিয়ার ঝড়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে ৫ উইকেটে হেরে আবার পথ হারিয়েছে বিরাট কোহলিরা।

এবি ডি ভিলিয়ার্স ও মঈন আলীর ঝড়ো হাফসেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ২০ ওভারে বেঙ্গালুরু ৭ উইকেটে করে ১৭১ রান। তবে হার্দিকের ১৬ বলে হার না মানা ৩৭ রানের টর্নেডো ইনিংসে ভর দিয়ে ৫ উইকেট হারিয়ে ৬ বল আগেই জয় নিশ্চিত করে মুম্বাই। এই জয়ে ৮ খেলায় ১০ পয়েন্ট নিয়ে তিনে উঠে এসেছে রোহিত শর্মারা।

ঘরের মাঠ ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে টস জিতে বেঙ্গালুরুকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় মুম্বাই। ভারতের বিশ্বকাপ দল ঘোষণার দিন পুরোপুরি ব্যর্থ অধিনায়ক কোহলি। ৯ বলে ৮ রান করে ফেরেন তিনি। তবে জ্বলে ওঠেন ডি ভিলিয়ার্স। প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানের ৫১ বলে ৬ চার ও ৪ ছক্কায় সাজানো ৭৫ রানে বড় সংগ্রহের ভিত পায় বেঙ্গালুরু। গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন মঈন। ৩২ বলে ১ চার ও ৫ ছক্কায় তিনি সাজান ৫০ রানের ইনিংস। তবে পরের দিকের ব্যাটসম্যানরা সুবিধা করতে না পারায় ১৭১ রানে শেষ হয় বেঙ্গালুরুর ইনিংস।

দুর্দান্ত বোলিংয়ে দিনটি রাঙিয়ে নিয়েছেন লাসিথ মালিঙ্গা। এই পেসার ৪ ওভারে ৩১ রান দিয়ে পেয়েছেন ৪ উইকেট।

১৭২ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ওপেনিংয়ে দারুণ শুরু এনে দেন কুইন্টন ডি কক ও রোহিত শর্মা। মুম্বাই অধিনায়ক ১৯ বলে ২ চার ও ২ ছক্কায় করেন ২৮ রান। আর ডি কক ২৬ বলে ৫ বাউন্ডারি ও ২ ছক্কায় করেন ৪০ রান। সূর্যকুমার যাদবের ব্যাট থেকে আসে ২৯ রান। ইশান কিষাণ ৯ বলে ৩ ছক্কায় খেলেন ২১ রানের ঝড়ো ইনিংস।

এরপরও হারের শঙ্কা জন্মে মুম্বাইয়ের ডাগ আউটে। তবে ১৬ বলে ৫ চার ও ২ ছক্কায় অপরাজিত ৩৭ রানের ইনিংস খেলে সব শঙ্কা উড়িয়ে মুম্বাইকে জয় এনে দেন হার্দিক।

ব্যাটিংয়ের পর বল হাতেও দারুণ দিন পার করেছেন বেঙ্গালুরুর মঈন আলী। এই স্পিনার ৪ ওভারে ১৮ রান খরচায় পেয়েছেন ২ উইকেট। ২৭ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়েছেন যুজবেন্দ্র চাহালও।

আগের ম্যাচে চোট পেয়ে ছিটকে যাওয়া আলজারি জোসেফের পরিবর্তে এদিন দল ঢোকেন মালিঙ্গা৷ মাঠে ফিরেই ম্যাচের সেরা হন তিনি৷ আগের ম্যাচে রাজস্থান রয়্যালের কাছে হেরেছিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ কিন্তু এদিন বিরাটদের হারিয়ে ফের জয়ে ফিরল রোহিত অ্যান্ড কোং৷

পিবিডি/জিএম

আইপিএল,মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স,রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত