Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯, ১২ চৈত্র ১৪২৫
  • ||
শিরোনাম

পুলওয়ামা হামলায় পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরানকে আফ্রিদির সমর্থন

প্রকাশ:  ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:৪৯
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট icon

পুলওয়ামা জঙ্গি হামলার প্রেক্ষিতে গৌতম গম্ভীরের যুদ্ধের দাবিতে করা টুইট নিয়ে সরাসরি প্রতিক্রিয়া দিতে না চাইলেও অবশেষে মুখ খুললেন পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেট অধিনায়ক শহিদ আফ্রিদি৷ পুলওয়ামার ঘটনা পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের অবস্থান স্পষ্ট করলেন আফ্রিদি৷ সংক্ষিপ্ত টুইটে পাক প্রধানমন্ত্রী তথা বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন পাক অধিনায়ক ইমরান খানের বক্তব্যকে সমর্থন করেন তারকা অলরাউন্ডার৷

পুলওয়ামার সন্ত্রাসবাদী হামলায় ৪০ জন সিআরপিএফ জওয়ানের মৃত্যুর পর পাকিস্তানের উপর চাপ বাড়তে থাকে৷ ফলে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান একটি বিবৃতিতে ভারতের কাছে থেকে ঘটনায় পাকিস্তানের জড়িত থাকার প্রমাণ চান৷ তিনি ভারতকে আলোচনার টেবিলে বসার আহ্বান জানানোর পাশাপাশি কার্যত হুমকিও দেন যে, ভারত আঘাত করতে পাকিস্তান নিশ্চিতভাবে প্রত্যাঘাত করবে৷

নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে ইমরানের সেই ভিডিও পোস্ট করে আফ্রিদি লেখেন, একেবারে স্ফোটিকস্বচ্ছ্ব৷ আফ্রিদির টুইটে ব্যকরণগত ভুল নিয়ে দ্রুত ব্যঙ্গ বিদ্রুপ শুরু হয়ে যায়৷ তবে ইমরানের বক্তব্যকে সমর্থন করে ভারতীয়দের চক্ষুশূল হতেও আফ্রিদির বিশেষ সময় লাগেনি৷

আফ্রিদি এই মুহূর্তে শোয়েব মালিকের নেতৃত্বাধীন মুলতান সুলতানসের হয়ে পাকিস্তান সুপার লিগ খেলতে ব্যস্ত৷ ক’দিন আগেই ইসলামাবাদ ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে ম্যাচের শেষে মাঠ ছেড়ে টিম বাসে ওঠার সময় আফ্রিদির কাছে গম্ভীর প্রসঙ্গে তার মতামত জানতে চাওয়া হয়৷ প্রশ্নকর্তা সাংবাদিক আফ্রিদিকে বলেন, গম্ভীর প্রসঙ্গে আপনার কী মত? ঘুরে দাঁড়িয়ে আফ্রিদি পাল্টা প্রশ্ন করে বসেন,কী হয়েছে ওর? পরে প্রশ্নকর্তা যুদ্ধের প্রসঙ্গ উত্থাপণ করতেই কোনও কথা না বলে টিম বাসে উঠে যান পাক তারকা৷

উল্লেখ্য, পুলওয়ামার ঘটনার নিন্দায় ভারতীয় ক্রিকেটমহল একযোগে সরব হলেও অত্যন্ত আগ্রাসী ছিলেন টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন ওপেনার তথা কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্রাক্তন অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর৷ তিনি যুদ্ধক্ষেত্রে পাকিস্তানকে জবাব দেওয়ার দাবি জানান৷ আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে গম্ভীর টুইট করেন, কথা বলা যাক বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সঙ্গে। আলোচনা হোক পাকিস্তানের সঙ্গে। তবে সেই আলোচনা টেবিলে নয়। বরং হোক যুদ্ধক্ষেত্রেই। অনেক হয়েছে আর নয়।

গম্ভীরের এমন যুদ্ধংদেহী মনোভাব নিয়ে প্রাক্তন পাক অধিনায়ক শহিদ আফ্রিদিকে প্রশ্ন করা হলে প্রাথমিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি প্রকারান্তরে গম্ভীরের কুশল সংবাদ জানতে চান৷ তবে গৌতমের মন্তব্য বা পুলওয়ামা জঙ্গি হামলা নিয়ে একটি শব্দও খরচ করেননি৷ স্পষ্টতই বিতর্ক এড়িয়ে যাওয়ার মানসিকতা চোখে পড়ে পাকিস্তানের তারকা অলরাউন্ডারের মধ্যে৷

/এস কে

apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত