Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯, ৫ চৈত্র ১৪২৫
  • ||

চকবাজার ট্র্যাজেডি, ছুঁয়ে গেছে তারকাদের হৃদয়ও

প্রকাশ:  ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০২:১৬
বিনোদন প্রতিবেদক
প্রিন্ট icon

পুরান ঢাকার চকবাজারে চুড়িহাট্টার অগ্নিকাণ্ডে মারা গেছেন অন্তত ৬৭জন। আগুনে দগ্ধ হয়ে হাসপাতালে কাতরাচ্ছেন নয়জন। সরকারি হিসেবে ১১ জনের নিখোঁজের তথ্য দেয়া হলেও রেড ক্রিসেন্ট কর্মীরা জানিয়েছেন, তাদের হিসেবে এখনও ৬২ জনের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ভাষা আন্দোলনের এই দিনে মর্মান্তিক এই অগ্নিকাণ্ড শোকের সাগরে ভাসিয়ে দিচ্ছে আগুনে পুড়ে যাওয়া স্বজনদের। এই অগ্নিকাণ্ডের শোক ছুঁয়ে যাচ্ছে সর্বস্তরের মানুষদের। ছুঁয়ে গেছে শোবিজের তারকাদের হৃদয়ও:

দেশসেরা চিত্রনায়ক শাকিব খান শোক প্রকাশ করে তার অফিসিয়াল ফ্যান পেজে লিখেছেন, ঢাকার চকবাজারে গতকাল রাতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় যারা মারা গেছেন তাদের প্রতি গভীর শোক প্রকাশ করছি। নিহতদের আত্মার শান্তি কামনার পাশাপাশি পরিবার ও পরিজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা রইলো। সেই সাথে আহতদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি।

চিত্রনায়ক আরিফিন শুভ একটি ছবি শেয়ার করে লিখেছেন, আমরা স্বব্ধ, আমরা শোকাহত।

জালালের গল্প’ খ্যাত নির্মাতা আবু শাহেদ ইমন ফেসবুকে লিখেন, প্রাইভেট কার বা সিএনজি-তে মেয়াদোত্তীর্ণ সিলিন্ডার ব্যবহার করে হাজার হাজার জীবন্ত বোমা নিয়ে আমরা ঘোরাফেরা করছি দিব্বি। নিচতলায় ক্যামিকেলের গোডাউন ভাড়া দিয়ে সংসার পরিজন নিয়ে আরামে ঘুমাচ্ছি দিনের পর দিন। প্রতিটি এলাকায় রাস্তার মোড়ে মোড়ে কোন রকম নিরাপত্তা ছাড়াই জীবন্ত বোমার সিলিন্ডারে রান্না হচ্ছে বছরের পর বছর। জনগণ নিজের ব্যক্তি স্বার্থে এই সব ক্ষুদ্র জাগতিক লাভের আশা ছাড়বেনা। কিন্তু সরকারের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিভাগগুলোর অনতিবিলম্বে সকল ধরনের গ্যাস সিলিন্ডার আর আবাসিক ভবন থাকা ক্যামিকেলের গোডাউনের অবস্থান সনাক্ত করে এর নিরাপত্তা বিধানে শক্ত পলিসি তৈরি করতে হবে। নতুবা নিমতলি বা চকবাজার এই রকম আরও শত মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।

সংগীতশিল্পী পিন্টু ঘোষ শোক প্রকাশ করে বলেন, এতগুলো তাজা প্রাণ পুড়ে নিঃশেষ। শোকের ভাষা হারিয়ে গেছে। তাদের আত্মার শান্তি কামনা করছি।

চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক একাধিক অগ্নিকাণ্ডের ছবি পোস্ট করে তার ফেসবুকে লিখেছেন, আমরা যদি একটু সচেতন হতাম তাহলে হয়তো শোকের মিছিল এতো বড় হতো না। যার যায় একমাত্র সে জানে সজন হারানোর যন্ত্রনা কত বেদনার! ভাষার দিনে ভাষা খুঁজে পাচ্ছি না। আল্লাহ তাদের পরিবার কে এই ভয়াবহ শোক সহ্য করার শক্তি দান করুন।

চিত্রনায়ক নিরব লিখেছেন, ভাষার দিনে ভাষা হারিয়ে ভাষাহীন আমি। চিত্রনায়িকা কেয়া শোক প্রকাশ করে লিখেছেন, চকবাজার অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ হয়ে মারা গেছে অনেক নিরীহ প্রাণ। বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করছি ও শোকে ডোবা পরিবারের জন্য রইলো সমবেদনা।

লাক্সতারকা উর্মিলা শ্রাবন্তী কর লিখেছেন, এ মুহূর্তে যারা ঢাকা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার বা এর আশেপাশে অবস্থান করছেন তারা দয়া করে ঢাকা মেডিকেলে চলে যান। চকবাজার অগ্নিকাণ্ডে আহতদের জন্য প্রচুর রক্ত লাগছে। চলুন রক্ত দিয়ে অর্জিত এই ভাষা দিবসে রক্ত দিয়ে জীবন বাঁচাই। সবার কাছে অনুরোধ করছি।

অভিনেত্রী শানৈরী দেবী শানু লিখেন, এমন লাশের মিছিল তো চাই নি। জীবন পোড়া গন্ধে ভারী হয়ে আছে একুশ। নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে আসছে পোড়া শোকের গন্ধে হয়ত জীবন আবার চলবে নতুন কোন ছন্দে!আহারে জীবন!

চলচ্চিত্র অভিনেতা সান আরাফ লিখেছেন, চকবাজারের অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের আত্মার শান্তি কামনা করছি। আল্লাহ তাদের তুমি স্বর্গবাসী করো, আমিন। অভিনেতা শামীম হাসান সরকার লিখেছেন, আমরা শোকাহত।

নৃত্যশিল্পী ও অভিনেত্রী সিনথিয়া ইয়াসমিন লিখেছেন, নিমতলী ট্রাজেডি, রানা প্লাজা ট্রাজেডি, চকবাজার ট্রাজেডি। আর কত ট্রাজেডি দরকার সচেতন এবং সাবধান হওয়ার জন্য। আল্লাহ এমন মৃত্যু আপনি আমার শত্রুকেও দিয়েন না। এমন মৃত্যু মেনে নেওয়া যায়না। এই কষ্ট এই আর্তনাদ সহ্য করার মতোনা। আল্লাহ রক্ষা করার মালিক আপনি, আপনি রহম করেন আমাদের উপর। সকল বিদেহী আত্মার রুহের মাগফেরাত কামনা করছি। আল্লাহ আপনি মৃতের স্বজনদের এই শোক সহ্য করার তৌফিক দান করেন।

প্রসঙ্গত, অমর একুশে উদযাপনের দিনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় পুরো দেশজুড়ে নেমে আসে শোকের ছায়া। ২০১০ সালে পুরান ঢাকার নিমতলীতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ১২৪ জনের প্রাণহানির ঘটনার নয় বছর পর একই এলাকায় এ ধরনের ঘটনায় ক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ।

পিবিডি/জিএম

পুরান ঢাকার অগ্নিকাণ্ড,শোবিজ তারকা,চিত্রনায়ক শাকিব খান,আরিফিন শুভ
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত